খুলনায় শেষ হলো চার দিনব্যাপী পারমাকালচার প্রশিক্ষণ

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো প্রতিবেদক : খুলনাসহ উপকূলীয় এলাকায় জলবায়ূ পরিবর্তন ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় নিয়ামক পারমাকালচার বা পারমানেন্ট এগ্রিকালচার পদ্ধতি। এই পদ্ধতি ব্যবহার উৎসাহিত করতে চার দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে শেষ হয়েছে।

নগরীর কারিতাস প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে গেল ১৮ সেপ্টেম্বর এ প্রশিক্ষণ শুরু হয়। প্রশিক্ষণে প্রতিদিন ইয়োগা ও মেডিটিশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ফর সাসটেইনবল ডেভেলপমেন্ট (বিএএসডি) এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে।
প্রশিক্ষণে ইকো ভিলেজের মূল্যবোধ ও পারমাকালচারের নীতিমালাসহ জৈব সার উৎপাদিত সবজি চাষ ও বিষমুক্ত সবজি চাষ বর্জ্যব্যবস্থাপনা, বিভিন্ন কম্পোষ্ট সার, তরল সার প্রস্তুত, বিভিন্ন ডিজাইনের গার্ডেন, দেশীয় বীজ সংরক্ষণের ব্যবহারিক দিক তুলে ধরা হয়। একই সাথে ইকোলজি, ইকোনমিক্স্র, সোসিওলজি ও ওয়াল্ডভিউসহ ইকো ভিলেজের চারটি মানদ- উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়।

বিএএসডির নির্বাহী পরিচালক বনিফেস সুব্রত গমেজের সভাপতিত্বে সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি ছিলেন সোনাডাঙ্গা ক্যাথলিক চার্চের পালক পুরোহিত ফাদার নরেন বৈদ্য, দিনাজপুর ক্যাথলিক চার্চের পুরোহিত ফাদার আন্তনি সেন, ব্যাপটিস্ট চার্চ খুলনার ফাদার জগদীশ বাগচি, রূপসা জামে মসজিদের ইমাম গোলাম রসুল ইমাম, কারিতাসের প্রধান হিসাব রক্ষক বিনয় সমদ্দার প্রমুখ। দেশের বিভিন্ন এলাকার অর্ধশতাধিক প্রতিনিধি প্রশিক্ষণে অংশ নেন।