UsharAlo logo
মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন, শিক্ষক আটক

usharalodesk
মে ২৪, ২০২৩ ১:০১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঊষার আলো রিপোর্ট : ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সাতক্ষীরায় এস. এম মোর্তজা আলম লিটন নামে এক স্কুলশিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। আটকের পর বুধবার (২৪ মে) সকাল ১১টায় তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার (২৩ মে) রাতে তাকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে সদর থানা পুলিশ।

আটককৃত শিক্ষক এস.এম মোর্তেজা আলম লিটন সাতক্ষীরা সদর থানার মাগুরা কর্মকার পাড়া গ্রামের মৃত. মুনসুর আলী সানার ছেলে এবং সাতক্ষীরা সদরের তালতলা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি ইংরেজি শিক্ষক।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বলেন, গত দুই মাস ধরে বিকেল ৫টা থেকে ইংরেজি বিষয়ে প্রাইভেট পড়ি মোর্তেজা লিটনের কাছে। প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার (২২ মে) বিকেল ৫টায় শিক্ষকের বাসায় ১২-১৩ জন সহপাঠি প্রাইভেট পড়তে যাই। প্রাইভেট পড়ানোর শেষ পর্যায়ে শিক্ষক বিভিন্ন অজুহাতে কৌশলে আমার খাতা দেখতে দেখতে এক ঘণ্টার বেশি সময় পার করেন। ততক্ষণে আমার অন্য সহপাঠিরা চলে যায়। এক পর্যায়ে তিনি আমাকে যৌন নিপীড়ন করেন।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী আরও বলেন, পরে আমি তাকে বাধা দিয়ে চিৎকার করার চেষ্টা করলে তিনি আমার মুখ চেপে ধরেন এবং বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখান। এক পর্যায়ে আমি নিজের চেষ্টায় শিক্ষককে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত নিজের বাসায় চলে আসি। বাড়িতে এসে বিষয়টি আমার মাকে জানাই। পরবর্তীতে বিষয়টি লিখিতভাবে সাতক্ষীরা সদর থানায় জানানো হয়।

এ বিষয়ে তালতলা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম বলেন, ছাত্রীর সঙ্গে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সহকারি ইংরেজি শিক্ষক লিটনকে আটক করেছে পুলিশ। ইতোমধ্যে ম্যানেজিং কমিটির মিটিং ডাকা হয়েছে। মিটিংয়ে সকলের সম্মতিক্রমে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) নজরুল ইসলাম বলেন, যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সাতক্ষীরা সদরের তালতলা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক মোর্তজা আলম লিটনকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা সদর থানায় যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা হয়েছে। আটককৃত শিক্ষককে সাতক্ষীরা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ঊষার আলো-এসএ