স্বাচিপের আলোচনা সভা

জাতির পিতা বাঙালি এবং বাংলাদেশকে হৃদয়ের সাথে গেঁথে রেখেছিলেন : সিটি মেয়র

সর্বশেষ আপডেটঃ
খুমেকে আলোচনা সভায় সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক - ঊষার আলো

ঊষার আলো ডেস্ক : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি এবং বাংলাদেশকে হৃদয়ের সাথে গেঁথে রেখেছিলেন। দেশের জন্য তেইশ বছর সংগ্রাম করে পরাধীন জাতিকে তিনি স্বাধীনতার লাল সূর্য উপহার দেন। সেই মহান নেতাকে খন্দকার মোস্তাক, জিয়ার মত সুযোগ সন্ধানী চক্রান্তকারী ও ষড়যন্ত্রকারীরা নৃশংসভাবে হত্যা করে। তিনি সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের নাম উল্লেখ করে বলেন বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জিয়া সরাসরি জড়িত ছিলেন। ইতিহাস কেউ মুছে ফেলতে পারবে না। ইতিহাস তার নিজস্ব গতিতে সঠিক পথে চলে।

সিটি মেয়র মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অডিটরিয়ামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ)-খুলনা জেলা শাখা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর খন্দকার মোস্তাক বিভিন্ন দূতাবাসে চাকুরী দিয়ে খুনীদের পুরস্কৃত করেন। একই সাথে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারী করে হত্যার দায় থেকে খুনীদের মুক্ত করেন। তিনি বলেন স্বাধীনতা বিরুদ্ধ সেই চক্রের ষড়যন্ত্র আজো থেমে নেই। তারা বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে উনিশবার হামলা চালিয়েছে। বাংলার জনগণ স্বাধীনতা বিরোধীদের এসব ষড়যন্ত্র ও অপকর্মের জবাব ব্যালটের মাধ্যমে দিয়ে যাচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ ও জনগণের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা শুরু করেছেন। একচল্লিশ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

স্বাচিপ-এর খুলনা জেলা শাখার সভাপতি ডা. এস এম সামছুল আহসান মাসুম-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা ও খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী। অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তৃতা করেন অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিএমএ খুলনার সাধারণ সম্পাদক ও খুলনা মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপ্যাল ডা. মোঃ মেহেদী নেওয়াজ। অন্যান্যের মধ্যে বঙ্গবন্ধু পরিষদ-খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি ডা. কাজী হামিদ আসগার, ডা. দিদারুল আলম শাহীন, ডা. মোঃ তানভীর, ডা. কামরুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা আল আমিন প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পনেরই আগস্টে নিহত স্বজনদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন খুলনা মেডিকেল কলেজ মসজিদের খতিব মাওঃ আব্দুল্লাহ আল কায়েস।