জাপা নেতা কাশেম হত্যা মামলার যুক্তিতর্কের শুনানী ২৩ মার্চ

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো প্রতিবেদক : খুলনা নগর জাপার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চেম্বারের সাবেক সভাপতি শেখ আবুল কাশেম হত্যা মামলার শুনানী ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। সোমবার (১৫ মার্চ) খুলনার জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাইফুজ্জামান হিরো  আদেশ দেন। চাঞ্চল‌্যকর কাশেম হত্যা মামলার আসামীদের পরীক্ষা ও আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগের পূর্ব নির্ধারিত দিন ছিল আজ। সে মতে, আদালতে উপস্থিত একমাত্র আসামি সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল গফ্ফার বিশ্বাসকে ৩৪২ ধারায় প্রশ্ন করা হলে তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। গত ৩ মার্চ ম্যাজিস্ট্রেট সগীর উদ্দিন আহমদের স্বাক্ষ্যদানের মধ্য দিয়ে মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ পর্ব শেষ হয়। এ মামলার বাদী রূপসা উপজেলার দেয়াড়া গ্রামের শেখ আলমগীর হোসেন ইতিমধ্যে মারা গেছেন। এ মামলাটি দীর্ঘদিন উচ্চ আদালতে স্থগিত ছিল। উচ্চ আদালত ২০১৮ সালের ২ আগষ্ট ভ্যাকেট রুল নিষ্পত্তি করে স্থগিত আদেশ প্রত্যাহার করেন। এ আদেশ এ বছরের ৩ জানুয়ারি খুলনায় এসে পৌঁছায়। এ মামলায় হাইকোর্টের নির্দেশনা আট মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে।
আদালতের সংশ্লিষ্ট সূত্রে প্রকাশ, ১৯৯৫ সালের ২৫ এপ্রিল নগরীর স্যার ইকবাল রোডের বেসিক ব্যাংকের সামনে জাপা নেতা শেখ আবুল কাশেম ও তার গাড়ির চালক মিকাইলকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় খুলনা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলার আসামীদের মধ্যে দু’জন মারা গেছে, একজন জামিনে রয়েছে ও ছয়জন পলাতক রয়েছে। সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আঃ গফ্ফার বিশ্বাস জামিনে রয়েছেন। মারা গেছে ইখতিয়ার উদ্দীন বাবলু ও মনির মীর। পলাতক রয়েছে জাপা নেতা মুশফিকুর রহমান, তার ভাই ওয়াছিকুর রহমান ও মফিজুর রহমান, তরিকুল ইসলাম টপি, তারেক ও মিল্টন।

(ঊষার আলো-আরএম)