দৌলতপুরে দ্বিতীয় দফায় কেসিসি’র বর্জ্য নিষ্কাশন

সর্বশেষ আপডেটঃ
10
0
ছবি : দৌলতপুরে বর্জ্য নিষ্কাশন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে কেসিসি।

ঊষার আলো প্রতিবেদক : নগরীর দৌলতপুর থানাধাীন অধিকাংশ এলাকায় পানি নিষ্কাশন পথগুলো আবর্জনায় ভরাট হয়ে থাকা, পানির সঙ্গে পলিথিন এবং অন্যান্য অপচনশীল পদার্থ ভেসে গিয়ে নালার মধ্যে আটকে থাকা, ড্রেনেজ লাইন ব্যবস্থা ভালো না থাকা, রাস্তার সংর্কীনতা, রাস্তা ভাঙ্গায় খালখন্দে জমে থাকা পানি নেমে যাবার মতো জায়গা না পাওয়া, তাছাড়া সামান্য বর্ষায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় । বর্ষার আগেই শহরের জলাবদ্ধতা দূরকরণে কেসিসি’র বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ইতিমধ্যেই এক্সোমিটারের মাধ্যমে প্রতিটি ওয়ার্ডে বর্জ্য নিষ্কাশনের উদ্যোগ গ্রহন করেছে। ইতিমধ্যেই দৌলতপুরে থানাধীন প্রতিটি ওয়ার্ডে এক্সোমিটারের মাধ্যমে কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে কেসিসি। এ ধারাবাহিকতায় নগরীর দৌলতপুর ৫নং ওয়ার্ডে দ্বিতীয় দফা কাজ শুরু করেছে কেসিসি’র বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ।
৫নং ওয়ার্ডের সুপার ভাইজার জাকির হোসেন জানান, ইতিপূর্বে এক্সোমিটার মাধ্যমে বর্জ্য নিষ্কাশনের কাজ দৌলতপুর ঋষিপাড়া মোড় হতে আমতলা হয়ে গোলাম খান রোড পর্যন্ত, দেয়ানা কমিশনার মোড় হয়ে মোল্লার মোড়পর্যন্ত এবং সর্বশেষ গাছতলা মন্দির পর্যন্ত কাজ শেষ হয়েছে। ওয়ার্ডের কিছু অংশ অর্থ্যাৎ বণিকপাড়া হতে আকাংখা টাওয়ার (১০ তলা) পর্যন্ত কাজ বাকি থেকে যায়। কিন্তু এক্সোমিটার ১৪নং ওয়ার্ডে কাজ করা দরুন ওয়ার্ডের যে অংশের কাজ বাকি ছিল তা পুর্নাঙ্গভাবে শেষ করার জন্য গত ১ মে হতে আবারও দ্বিতীয় দফায় শুরু হয়েছে। এবং এ কাজ শেষ হতে ৫ মে পর্যন্ত সময় লাগবে বলে তিনি জানান। তাছাড়া যেখানে কেসিসি’র এক্সোমিটার ঢোকেনা সেখানে ওয়ার্ডের পরিচ্ছন্ন কর্মীরা ম্যানুয়ালী কাজ করছে।
৫নং ওয়ার্ড সুযোগ্য কাউন্সিলর ও আ’লীগ নেতা শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, আমার ওয়ার্ডে এক্সোমিটার মাধ্যমে প্রথম দফায় কাজ শেষ না হওয়ার কারণে গত ১ মে হতে আবারও দ্বিতীয় দফায় বর্জ্য নিষ্কাশনের কাজ শুরু হয়েছে। এবং এ কাজ শেষ হতে ৫ মে পর্যন্ত সময় লাগবে। যা বণিকপাড়া হতে ১০ তলা অর্থ্যাৎ আকাংখা টাওয়ার গিয়ে শেষ হবে। আশা করি এবারের বর্ষায় আমার ওয়ার্ডে জলাবন্ধতা নিরসনে কেসিসি’র এই উদ্যোগ সহায়ক ভূমিকা রাখবে। এ উদ্যোগে বর্ষায় স্বাভাবিক চলাচলে জনদূর্ভোগ কমবে।
কেসিসি’র প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রধান আব্দুল আজিজ বলেন, কেসিসি সারা বছরই বর্জ্য নিষ্কাসনের পরিকল্পিতকাজ করে। আমরা ইতি মধ্যে কেসিসি’র প্রতিটি ওয়ার্ডে এক্সোমিটারের মাধ্যমে বর্জ্য নিষ্কাশন শুরু করেছি এবং এ কাজ প্রতিটি ওয়ার্ড কেন্দ্রিক পর্যায়ক্রমে চলবে, ৫নং ওয়ার্ডে পূর্নাঙ্গ কাজ শেষ না হওয়ার দরুন পুনঃরায় এক্সোমিটার পাঠানো হয়েছে কাজ পূর্নাঙ্গভাবে শেষ করার জন্য বলে জানিয়েছেন এ কর্মকর্তা।

(ঊষার আলো-আরএম)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ