বানারীপাড়ায় কঠোর লকডাউন : মোবাইল কোর্টে ৬ জনকে অর্থদণ্ড

সর্বশেষ আপডেটঃ

বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি : বরিশালের বানারীপাড়ায় সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন কার্যকর হয়েছে। বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে সার্বিক কার্যাবলী/চলাচল বিধি-নিষেধ আরোপ সংক্রান্ত মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষে সরকার ঘোষিত এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন চলাকালীন আইন অমান্য করায় মোবাইল কোর্টে ৬ জনকে অর্থদণ্ড করা হয়। বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত উপজেলার বন্দরবাজার, রায়ের হাট, চাখার বাজার ও সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রিপন কুমার সাহা’র নেতৃত্বে মোবাইল কোর্টের এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিশাত শারমিন। তাদেরকে সহযোগিতা করেন বানারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস টিম। এ সময় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় মোবাইল কোর্টে ৬ জন ক্রেতা-বিক্রেতা ও পথচারীদের কাছ থেকে মোট ২ হাজার ১ শত টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।
এছাড়া সকালে বানারীপাড়া থানার ওসি মো. হেলাল উদ্দিনের নির্দেশনায় পুলিশ পৌর শহরসহ বিভিন্ন এলাকায় সচেতনতামূলক মাইকিং করেছে। পৌর শহরের রায়েরহাট ব্রিজের ঢালসহ বিভিন্ন পয়েন্টে চেকপোষ্ট বসিয়ে ও পুলিশের দু’টি টহল টিম যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখতে দায়িত্ব পালণ করেন। এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রিপন কুমার সাহা বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ১ জুলাই থেকে এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন কার্যকর করতে নিয়মিত মোবাইল কোর্টের অভিযান চলবে। এদিকে ২ জুলাই বানারীপাড়ায় সেনাবাহিনীর একটি টিম আসতে পারে বলে জানা গেছে।
(ঊষার আলো-এমএনএস)