রূপসায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে ৫জনের কারাদণ্ড

সর্বশেষ আপডেটঃ
ছবি : দণ্ডপ্রাপ্ত ৫ আসামী।

ঊষার আলো প্রতিবেদক : নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অপরাধে পাঁচ জনকে ৭ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার (৪জুলাই) দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট রুবাইয়া তাছনিম বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেন এবং পাঁচ জনকে আটক করে এই কারাদণ্ড প্রদান করেন।

ছবি: অভিযানকালে নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট রুবাইয়া তাছনিমের নেতৃত্বে একটি টিম

এ ব্যাপারে রুবাইয়া তাছনিম জানান, নদী থেকে বালু উত্তোলন করা নিষিদ্ধ। এর আগেও তাদেরকে এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। কিন্তু তারা তা মানেনি। আজ তাই ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করার অপরাধে পাঁচ জনকে সাত দিনের কারাদণ্ড ও ড্রেজার মেশিনটি জব্দ করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, থানা অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশাররফ হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী এস এম ওয়াহিদুজ্জামানসহ অনেকেই।

জানা গেছে, খুলনার রূপসা উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নের নন্দনপুর এলাকায় কতিপয় ব্যাক্তি দীর্ঘ দিন ধরে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। এর আগে উপজেলা প্রশাসন থেকে তাদেরকে নদী থেকে বালু উত্তোলন করতে নিষেধ করা হলেও, তারা তা অমান্য করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন অব্যাহত রাখে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার ফলে এখন নদীর তীরে ভাঙ্গন দিয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, যে কোন সময় শ্রীরামপুরের বাঁধ ভেঙ্গে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে, এক হাজার একর কৃষি জমি এবং মুজিব বর্ষ উপলক্ষে দেওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার ‘গৃহহীন ও ভূমিহীনদের ঘর’।

(ঊষার আলো-আরএম)