রূপসা মহাশ্মশান ও শ্মশান কালী মন্দিরের ১০১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : রূপসা মহাশ্মশান ও শ্মশান কালী মন্দিরের ১০১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী শুক্রবার (১৪ মে) যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পালন করা হয়। মন্দির কমিটির আয়োজনে বিকেল ৫টায় ঘট বিসর্জন, সন্ধ্যা ৭টায় চিতায় মাল্যদান, প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, সাড়ে ৭টায় সকল বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা, মাতৃসঙ্গীত, রাত ১২-০১ মায়ের পূজা, পূজা শেষে দেশবাসীসহ বিশ্বের ভয়াবহ করোনা থেকে পরিত্রাণের জন্য বিশেষ প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রূপসা মহাশ্মশান ও শ্মশান কালী মন্দির কমিটির সভাপতি বিজয় কুমার ঘোষ। সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার নাথের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুমার কুণ্ডু।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মন্দির কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি অরবিন্দু সাহা, সহ-সভাপতি এড. অলোকা নন্দা দাস, বিশিষ্ট ধর্মানুরাগী ও সমাজসেবক বাবলু বিশ্বাস, অঞ্জন দে, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান যুব ঐক্য পরিষদ, খুলনা মহানগর সভাপতি বিশ্বজিৎ দে মিঠু, পূজা উদযাপন পরিষদ, খুলনা সদর থানা সভাপতি বিকাশ কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব সাহা লব, সোনাডাঙ্গা থানা সভাপতি বিপ্লব মিত্র, সাধারণ সম্পাদক রামচন্দ্র পোদ্দার, পূজা পরিষদ নেতা ভোলানাথ দত্ত, উজ্জ্বল ব্যানার্জী, সুশান্ত ব্যানার্জী, উজ্জ্বল রায়, অলোক দে, রাজু শীল, রবীন দাস, মন্দির কমিটির দুলাল সরকার, এড. পপি ব্যানার্জী, নারায়ণ দাস, জয় মণ্ডল, সুমন দত্ত, সন্তোষ মজুমদার, গোপাল ঘোষ, সবিতা মজুমদার, সন্ধ্যা বিশ্বাস, তাপস তালুকদার, মনোতোষ তালুকদার, অনুপ সরকার, রনি সরকার, বিপ্র দাস, বিধান রায় প্রমুখ। প্রার্থনা পরিচালনা করেন রূপসা কালী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত সুরেশ চক্রবর্ত্তী।

(ঊষার আলো-এমএনএস)