কোয়ারেন্টিনে থাকা ধর্ষিতার করোনার রিপোর্ট নেগেটিভ

শীঘ্রই কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পাচ্ছেন

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : খুলনায় কোয়ারেন্টিনে ধর্ষণের শিকার নারীর করোনার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। সুতরাং তিনি কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পাচ্ছেন। বুধবার (১৯ মে) সন্ধ্যায় তার করোনা পরীক্ষার ফল জেলা প্রশাসনের হাতে আসে।
এর আগে মঙ্গলবার (১৮ মে) রাতে কোয়ারেন্টিন কেন্দ্রে ওই নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। সে সময় কোয়ারেন্টিন সেন্টারে থাকা অন্যরা এবং নারী পুলিশ সদস্যরা তাঁকে রক্ষা করেন।
জেলা প্রশাসন ও পুলিশের সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (১৮ মে) ধর্ষিতা নারীর কোয়ারেন্টিন (১৪ দিন) পূর্ণ হয়। কিন্তু সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৪তম দিনে করোনা পরীক্ষা করতে হয়। মঙ্গলবার বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ডাক্তারি পরীক্ষার পর ওই নারীকে আবার কোয়ারেন্টিন কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন তাঁকে সেখান থেকে ছেড়ে দেয়ার দাবি জানান তিনি। আইনগত কারণে তাঁর দাবি পূরণ করা যায়নি। পরবর্তীতে রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। বিষয়টি টের পেয়ে ওই কেন্দ্রে থাকা অন্যান্য নারী ও নারী পুলিশ সদস্যরা তাঁকে নিবৃত্ত করেন।
জেলা প্রশাসন সূত্রে আরও জানা যায়, তাঁকে ছেড়ে দেয়ার সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা আছে। সামান্য কিছু ফরমালিটিজ বাকি আছে, সেগুলো শেষ করা হলেই তাঁকে ছেড়ে দেয়া হবে।
ধর্ষণের মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আবু সাইদ সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুরে ওই তরুণীর প্রয়োজনীয় ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যের ডিএনএ টেস্ট করার জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে। হয়তো দুই-এক দিনের মধ্যে অনুমতি মিলবে। আদালতে অনুমতি পাওয়া গেলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)