সচেতনতাই একমাত্র উপায়

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : করোনাকালেও আমরা দেখছি যে কিছু মানুষ মাস্ক ব্যবহার না করে অবাধে চলাফেরা করেছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনোরকম পরোয়া না করে। এই উপেক্ষা ও অবহেলা আজ আমাদের কোথায় নিয়ে এসেছে বা কোথায় নিয়ে যাচ্ছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রশাসন বা মিডিয়া সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা বলতে বলতে যেন ক্লান্ত হয়ে গেছে।

আমাদের শুধু ৩টি বিষয় মেনে চলার দরকার ছিল, সঠিক মানের মাস্ক পরা, ২০ সেকেন্ডব্যাপী ঘন ঘন হাত ধোয়া ও জনসমাগম এড়িয়ে চলা। মৃত্যুর চেয়ে এ ৩টি নিয়ম মেনে চলাক ঠিন না। শেষের নিয়মটা অনেক সময় ও অনেক ক্ষেত্রে মেনে চলা একটু কঠিন হলেও বাকি ২টি কঠিন না। আর মাস্কের কথা বললে তা এখন প্রহশণ হয়ে দাড়িয়েছে। অনেকে মাস্ক ব্যবহার করলেও তা থুতনিতে ঝুলিয়ে বা পকেটে ভরে অথবা হাতে নিয়ে হেঁটে বেড়াচ্ছে। আর এর মধ্যে হাত ধোয়ার তো কোনও বালাই নেই। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনও উপক্রম নেই কারোর। কেউ যেন কিছু বুঝতেই চাচ্ছে না।

কেউ বুঝতে চাচ্ছে না এই ভুল বা অবহেলায় আজ আমরা কোথায় এসে পৌঁছেছি! কোন বিপদের দিকে অগ্রসর হতে যাচ্ছি।

এটা সঠিক যে লকডাউন দিয়ে মানুষকে ঘরে বসিয়ে রাখা কঠিন। তাদের জীবিকার চিন্তা করতে হবে নিজের পরিবারের জন্য। আয়-রোজগার করতে না পারলে তারা আসলে খাবে কী? ফলে যে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে দীর্ঘমেয়াদি একটা পরিকল্পনা অবশ্যই থাকা দরকার।

কাজেই স্বাস্থ্যবিধি মানার পাশাপাশি সঠিক পরিকল্পনা করতে হবে, না হলে সবাই আরও বেশি বিপর্যস্ত হয়ে পড়বে।

(ঊষার আলো-এফএসপি)