রাজবাড়ীতে শুরুতেই লোকসানের আশঙ্কা পাট চাষিদের

সর্বশেষ আপডেটঃ
12
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : রাজবাড়ীতে খরা ও তাপদাহে চরম বিপাকে পড়েছে পাট চাষিরা। অতিরিক্ত খরায় পাটক্ষেতে দেখা দিয়েছে ছটকা পোকার আক্রমণ। পাট চাষিরা বলছে, এ বছর বৃষ্টি না থাকায় মেশিন দিয়ে পানি দিতে গিয়ে খরচ হচ্ছে কয়েকগুণ, তার ওপর আবর পোকার আক্রমণ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পরেছে তারা।
৩ মে সোমবার সকালে সরেজমিনে রাজবাড়ী সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের এক কৃষকের পাটক্ষেতে গিয়ে দেখা যায়, স্বাভাবিকভাবে এই সময়ে ক্ষেতের প্রতিটি পাট অন্তত ৩ থেকে সাড়ে ৩ ফুট লম্বা হওয়ার কথা থাকলেও পাট যেন মাটিতে হামাগুড়ি খাচ্ছে। খরা ও তাপদাহে পাট পুড়ে বসে গেছে মাটিতে।
শুধু তিনি একায় নয় একই অবস্থা তার মতো আরও শত শত কৃষকের। কৃষকেরা বলেন, মেশিনে সেচ দিয়ে পাট চাষ করতে গিয়ে বিঘা প্রতি অন্তত ২ হাজার টাকা বেশি খরচ হচ্ছে। যে কারণে শুরুতেই লোকসানের আশঙ্কা করছে তারা। এ ব্যপারে পরামর্শ দেওয়ার জন্য কোনো কৃষি কর্মকর্তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেছে তারা।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন শেক বলেন, বৃষ্টি একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পাটের ক্ষতি হচ্ছে। বৃষ্টি হলেই পাট বেড়ে যাবে। আর পোকার আক্রমণরোধে প্রয়োজনে কীটনাশক ব্যবহারের পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, এ বছর রাজবাড়ী সদর উপজেলায় ১০ হাজার ১৪৫ হেক্টর জমিতে পাটের চাষ হয়েছে।

(ঊষার আলো- এম. এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ