সীমিত সম্পদ দিয়ে জনগণকে চিকিৎসা দিতে হবে : সিটি মেয়র

56
0

তথ্যবিবরণী :    খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, সীমিত সম্পদ দিয়ে জনগণকে চিকিৎসা দিতে হবে। ব্যবসায়িক মনোবৃত্তি পরিহার করে মানুষের কল্যাণে চিকিৎসাসেবা দিতে হবে। চিকিৎসাসেবা একটি মহান পেশা। দেশে স্বাস্থ্যসেবার মান আগের তুলনায় অনেক উন্নতি হয়েছে।

তিনি রোববার (২২ নভেম্বর) বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সম্মেলনকক্ষে ‘কোয়ালিটি ইমপ্রুভমেন্ট সেক্রেটারিয়েট’ বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট এ কর্মশালার আয়োজন করে।

সিটি মেয়র বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর প্রতি ৬ হাজার জনগোষ্ঠীর জন্য একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক এবং এ পর্যন্ত দেশব্যাপী ১৭ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিক চালুর ফলে গ্রামের মানুষের জন্য বিনামূল্যে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে বিনামূল্যে বিভিন্ন রকম ওষুধ প্রদান করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার কমিয়ে আনায় বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেছে।

তিনি আরও বলেন, এখন গ্রাম ও শহরের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা এখন গ্রামেও রয়েছে। ডাক্তারদের গ্রামের অসহায় মানুষকে চিকিৎসা দিতে হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানুষের দোরগোড়ায় অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে চেয়েছিলেন। যার যার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করলে সেবার মান আরও উন্নতি হবে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মুন্সী মোঃ রেজা সেকেন্দারের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের মহাপরিচালক ডাঃ মোঃ শাহাদত হোসেন মাহমুদ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, ঝিনাইদহ পৌর সভার মেয়র মোঃ সাইদুল করিম মিন্টু, খুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধক্ষ্য ডাঃ মোঃ মেহেদী নেওয়াজ, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মোঃ মাহবুব আলম সোহাগ প্রমুখ।
কর্মশালায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, চিকিৎসক ও নার্সরা অংশ নেন।