বৈষম্য বিলোপে উন্নয়ন সংলাপ সভা

সর্বশেষ আপডেটঃ
46
0
ছবি: সম্প্রীতি ফোরাম ও দলিতের আয়োজনে রবিবার বৈষম্য বিলোপ এ উন্নয়ন সংলাপ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ঊষার আলো প্রতিবেদক : সম্প্রীতি ফোরাম ও দলিতের আয়োজনে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগীতায় ইউকেএইডের অর্থায়নে বৈষম্য বিলোপ এ উন্নয়ন সংলাপ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিপাদ্য হচ্ছে জাতপাত বৈষম্যের বিরুদ্ধে দাড়িয়েছে যুবসমাজ।

রবিবার (২১ মার্চ) সকাল ৯টায় নগরভবন, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত “মুজিব শতবর্ষ ও আর্ন্তজাতিক বর্ণ বৈষম্য বিলোপ দিবস-২০২১ উদযাপিত হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্জ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, মেয়র খুলনা সিটি করপোরেশন, সভায় সভাপতিত্ব করেন সভাপতি, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদ সমন্বয় কমিটি ও নির্বাহী সদস্য, সম্প্রীতি ফোরাম, শেখ আশরাফ-উজ-জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন আলী আকবর টিপু, প্যানেল মেয়র-২, মোহাম্মদ আলী, কাউন্সিলর, ৫ নং ওয়ার্ড, শেখ মোশারফ হোসেন, কাউন্সিলর, ১৪ নং ওয়ার্ড, ধীরেন্দ্রনাথ ঘোষ, সভাপতি, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ।

স্বাগত বক্তব্য দেন স্বপন কুমার দাশ, নির্বাহী পরিচালক, দলিত। অনুষ্ঠানে দলিত ও হরিজন এলাকার সমস্যা গুলো তুলে ধরা হয়। সিটি মেয়র সোনাডাঙা হরিজন কলোনীর পানির বিলের সমস্যা সমাধানের তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশ করেন। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু সমমর্যাদাপূর্ণ সোনার বাংলা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ২০৪১ সালের স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে তার যে দায়িত্ব তা পালনে সে কোন ধরনের ত্রুটি করবেন না। ছেলেমেয়েদের শিক্ষিত করা সহ বিকল্প পেশা তৈরি করার আহ্বান জানান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, সম্প্রীতি ফোরামের সদস্য ইসরাত আরা হীরা, ফারহানা নিপু, মোঃ সাবির খান। কালীপদ দাস, সভাপতি, বাংলাদেশ দলিত পরিষদ। দলিত ও হরিজন জনগোষ্ঠীর বর্তমান চিত্র তুলে ধরেন দলিত এর প্রকল্প সমন্বয়কারী বিকাশ কুমার দাশ। বক্তারা বলেন, দলিত ও হরিজন জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় সমাজের সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। সকল ক্ষেত্রে তারা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন। তাদের বসবাসের এলাকাসমূহকে মুচিপাড়া, জেলে পাড়া, মেথর কলোনী, কাওরা পাড়া নাম দিয়ে দলিত ও হরিজন গোষ্ঠীর সকলকেই এই বৈষম্যের শিকার করা হচ্ছে। দলিত এলাকার বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের সর্বদা সচেষ্ট থাকবেন বলে অঙ্গীকার করেন প্যানেল মেয়র-২ আলী আকবর টিপু। লোকের মুখ ও মন থেকে মুচি পাড়া দূর করতে নিজ উদ্দ্যোগে দৌলতপুর ঋষিপাড়ার সামনে সাইনবোর্ডে নাম লেখার ব্যবস্থা করবেন বলে জানান মোহাম্মদ আলী। সভায় উপস্থিত ছিলেন দলিত কমিউনিটি সংঘ এর বিভিন্ন এলাকার প্রতিনিধিবৃন্দ নারায়ণ চন্দ্র দাস,রাজু দাস, দিপক সরকার, মিনতি বিশ্বাস, বুলু রানী দাস, গীতা রানী, অঞ্জলী মন্ডল যুব কমিটির সভাপতি শাওন কুমার দাশ, সুষ্মিতা সরকার ও দলিত সংস্থার কর্মী জুলি বাড়ৈ, সন্তোষ কুমার দাশ,পার্থ প্রতীম দে, লক্ষ্মী দাস।

(ঊষার আলো-আরএম)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ