লোহাগড়ায় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে কলেজছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ

সর্বশেষ আপডেটঃ
37
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : নড়াইলের লোহাগড়ায় কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ এবং ভিডিও ধারণের দায়ে ১ গৃহশিক্ষকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। ২০২০ সালের ১৪ আক্টোবরের ওই ঘটনার কথা অভিযুক্ত শিক্ষক আদালতে স্বীকারও করেছে।
গত ২১ মার্চ লোহাগড়া থানায় ছাত্রীর বাবার করা মামলায় আটক আশরাফুজ্জামান রানা নামে ওই অভিযুক্তকে ২২মার্চ সোমবার বিকেলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমাতুল মোর্শেদার আদালতে তোলা হয়। সেখানে ঘটনার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আদালত আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর ভুক্তভোগী কলেজছাত্রী তাদের প্রতিবেশী লোহাগড়া পৌরসভার গোপিনাথপুর গ্রামের মৃত মনিরুজ্জামান শেখের ছেলে আশরাফুজ্জামান রানার কাছে তাদের বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে যান। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে নির্জন ঘরে শিক্ষক রানা ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ ও মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন।
পরে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণসহ স্বর্ণের গহনা বিক্রি করে বিভিন্ন সময় টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এক পর্যায়ে সম্প্রতি ওই ছাত্রীর বিয়ে ঠিক হলে বিয়ে ভাঙতে অভিযুক্ত রানা পাত্রের বাড়িতে গিয়ে ধর্ষণের ভিডিও দেখান। এরপর ঘটনা জানাজানি হলে নির্যাতিতার বাবা আইনের আশ্রয় নেন।

(ঊষার আলো- এম.এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ