খুমেক হাসপাতালের সেই ফার্মাসিস্টকে শোকজ

সর্বশেষ আপডেটঃ
40
0

ঊষার আলো প্রতিবেদক : খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সেই ফার্মাসিস্ট এস এম আব্দুল মফিজকে শোকজ করেছেন হাসপাতালের পরিচালক। বুধবার (৭ এপ্রিল) হাসপাতালের পরিচালক তাকে শোকজ করেন। আগামী ৩ কর্মদিবসের মধ্যে শোকজের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
শোকজে উল্লেখ করা হয়, ফার্মাসিস্ট এস এম আব্দুল মফিজ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফার্মেসী ( আউটডোর) বিভাগের ইনচার্জ হিসেবে গত ২০২০ সালের ১১ মার্চ দায়িত্ব গ্রহন করে। পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে গত ২০২১ সালের ২০ মার্চ উক্ত মফিজ দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। এ সময় ফার্মাসিস্ট মফিজ হাসপাতালের সরকারি ওষুধ ক্যাপসোল সেফিক্সিক (৪০০ মি: গ্রাম) ৬০০ পিস, ট্যাবলেট ক্লোপিড (৭৫ গ্রাম) ৪৫০ পিস এবং ক্যাপসুল ফ্লুক্লক্স ১ হাজার ২শ পিস বুঝিয়ে না দিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে নিজের কাছে রাখেন। যা সরকারি কর্মচারী শৃঙ্খলা পরিপন্থী অপরাধ। সেহেতু কেন আপনার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তার সন্তোষজনক জবাব আগামী ৩ কর্মদিবসের মধ্যে পরিচালকের বরাবর নিদের্শ প্রদান করেন।
খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা: এটি এম মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, ফার্মাসিস্ট মফিজকে শোকজ করা হয়েছে। আগামী ৩ কর্মদিবসের মধ্যে শোকজের জবাব দিতে বলা হয়।
সূত্রটি জানায়, খুলনা জেনারেল হাসপাতালের থাকা অবস্থায় ফার্মাসিস্ট এস এম আব্দুল মফিজের বিরুদ্ধে সরকারি ওষুধ অবৈধভাবে পাচারের অভিযোগে ছিলো। দীর্ঘ ৭-৮ বছর আগে পুলিশের একটি টিম সরকারি ওষুধসহ একজনকে আটক করেছিলো। ওই ছেলের স্বীকারোক্তিতে তৎকালীন ফার্মাসিস্ট ইনচার্জ এস এম আব্দুল মফিজের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিলো। ফার্মাসিস্ট মফিজ খুমেক হাসপাতালে ফার্মেসীর ইনচার্জ থাকাকালীন বহি: বিভাগের রোগীদের ওষুধ সরিয়ে বিভিন্ন সময় নিজের কাছে রক্ষিত রাখতেন। কিন্তু কাগজ-কলমে রোগীদের দেয়ার বিষয় উল্লেখ রাখতেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ