টেলিটকের ফাইভ-জি প্রকল্প স্থগিত

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : ব্যয় সংকোচন নীতিতে টেলিটকের ফাইভ জি প্রকল্প স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সকালে একনেক সভায় তিনি এ নির্দেশ দিলেন।

প্রধানমন্ত্রী জানান, টেলিটকের ফাইভ-জি প্রকল্প এখনই দরকার নেই, তার আগে দেশের সব জায়গায় মোবাইল ফোনের ফোর-জি সেবা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

আজ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় একনেক চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যোগ দেন। তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মোট ৭টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে খরচ হবে দুই হাজার ৭ কোটি টাকা।
ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে ফাইভ-জি প্রযুক্তি চালু করতে যাচ্ছে টেলিটক। প্রকল্পটি মোট ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়ন করতে চাই টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড। প্রকল্পের ৮০ শতাংশ ইক্যুইপমেন্ট বিদেশ থেকে ডলার দিয়ে কিনে আনতে হবে।

একনেক সভায় প্রকল্পটি চূড়ান্ত অনুমোদন করার জন্য উপস্থাপন করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। কিন্তু ব্যয় সংকোচনের জন্য প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদন না দিয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, যেহেতু সরকার কৃচ্ছতাসাধন করছে ও টেলিটকের ফাইভ-জি প্রকল্পের বড় অংশই আমদানি নির্ভর। কাজে ডলার ব্যবহারের ওপর চাপ কমাতেই প্রকল্পটি বাদ দেয়া হয়েছে। আর আপাতত দেশে ফাইভ জি কাভারেজের চেয়ে ফোর-জির পরিধি বাড়ানো বেশি জরুরি। কাজে সেই আঙ্গিকে মোবাইল অপারেটরদের কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর।

(ঊষার আলো-এফএসপি)