ডিজিটাল উৎপাতে অতিষ্ঠ গ্রাহক

সর্বশেষ আপডেটঃ
47
0
প্রতিকী গ্রাফিক্স - সংগৃহিত

এম এন আলী শিপলু : ডিজিটাল সেবার নামে ডিজিটাল উৎপাতে অতিষ্ঠ মোবাইল ব্যবহারকারী গ্রাহকরা। সাম্প্রতিক সময়ে মোবাইল ফোন কোম্পানীসহ বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটিং কোম্পানীর উৎপাত দিনে দিনে বেড়েছে, এতে মানুষ নানাভাবে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে।
কিছুক্ষণ পর-পর বিভিন্ন অফারের মেসেজ, বিভিন্ন কোম্পানীর বিভিন্ন অফার, ১৭ টাকায় ২ জিবি মেয়াদ ২দিন, এতো টাকায় রিচার্জে এত টাকা বোনাস, হুট করেই ইভ্যালী থেকে ফোন, স্যার আমাদের এই অফারটা গ্রহণ করতে পারেন ওই প্রোডাক্ট নিতে পারেন, নতুন এসেছে। কিংবা স্বপ্ন ও মিনা বাজার থেকে ফোন, স্যার আমাদের শপে বাজার করলে এত পার্সেন্ট ক্যাশ ব্যাক, এই ধরণের অযাচিত ফোন আর মেসেজে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে শহর ও গ্রামের মানুষেরা।
এই ধরণের নানা আজে-বাজে পণ্য বা ইকমার্স সাইট ও মোবাইল ফোন অপারেটরদের অত্যাচারের শিকার কমবেশী আমরা সবাই। এমনকি ইফতারের সময়েও মোবাইল কোম্পানি থেকে রিং ও ম্যাসেজ আসছে, যা খুবই বিরক্তকর।
নর্থ ওয়েস্টার্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের শিক্ষার্থী ‘তানভীর’ এ প্রতিবেদককে বলেন, দেখা গেলো রাতে বসে গুরুত্বপূর্ণ এসাইনমেন্ট করছি, হুট করেই বাংলালিংক কোম্পানী থেকে ফোন আসলো, তারা ফোন দিয়ে গান শোনাচ্ছে, কিছুক্ষণ পরে বললো, এই টিউনটি কপি করতে চাইলে অমুক বোতামে চাপুন, ইন্টারনেট অফারের জন্য তমুক বোতাম চাপুন। তানভীর বলেন, এ ধরণের ফাজলামি খুবই বিরক্তিকর।
তানভীর আরও বলেন, আমি বাংলালিংক সিম ব্যবহার করি, আরে ভাই আপনাদের অফার আছে ভালো কথা সেটা নির্দিষ্ট রিটেইলে থাকবে আমরা সেখান থেকে জেনে নিবো, কিন্তু আপনারা সময়-অসময়ে মানুষকে জ্বালাতন করছেন কেন? এর বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেয়া দরকার বলে আমি মনে করি।
শহরের সাতরাস্তা মোড়ের চায়ের দোকানদার আনোয়ার ঊষার আলোর প্রতিবেদককে বলেন, চা বানাচ্ছি কাস্টমারের ভীড়, হঠাৎ ফোন আসলো, ভাবলাম কেউ দরকারে গুরুত্বপূর্ণ ফোন করেছে কিন্তু না, দেখি গ্রামীন কোম্পানী থেকে ফোন আসছে ,তারা ফোন দিয়ে গান শোনায়। তিনি বলেন তখন মন চায় মোবাইলডা ধরে আছাড় মেরে ভেঙ্গে ফেলি।
বিভিন্ন সেবার নামে ই-কমার্স ও মোবাইল ফোন অপারেটর কোম্পানীগুলো নানাভাবে সাধারণ মানুষকে বিরক্ত করছে, এতে নেই কোন আইনী বিধিমালা। যার কারণে দিনে দিনে কোম্পানীগুলো বেপরোয়া হয়ে সেবার নামে মানুষকে এক ধরণের মানসিক নির্যাতন করে আসছে। সাধারণ মানুষ বলছে, এ ধরণের কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ ও আইনী নীতিমালা তৈরি করা দরকার।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ