দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন

সর্বশেষ আপডেটঃ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : এবার পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করলেন পাইকগাছা উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

৫ দফা ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২ এর আলোকে প্রস্তাবিত জনবল কাঠামো ও নিয়োগ বিধিবাস্তবায়ন, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা পদ আপগ্রেডেশন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পদ আপগ্রেডেশন, সচিবলায়ের ন্যায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মচারীদের পদনাম পরিবর্তন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সকল শূন্যপদ পদোন্নতি/চলতি দায়িত্ব/নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ সহ বিভিন্ন দাবী আদায়ের লক্ষে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করে।

একই দাবীতে এর আগে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করে অত্র দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন কালে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মুজিব কেল্লা আব্দুল আজিজ, উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুর রহমান, মারুফ হোসেন, সবুর খান, সুমন আল-মামুন ও সুজয় মিস্ত্রী। কর্মসূচি প্রসঙ্গে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস বলেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দুর্যোগ প্রবণ দেশের কোটি মানুষের পুনর্বাসন, গ্রামীন অবকাঠামো ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং পুনর্গঠনের লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয় গঠন করেন।

এ মন্ত্রণালয়ের অধীন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর এর জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা যথাক্রমে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সহ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সর্বস্থরের কর্মকর্তা কর্মচারী তাদের কর্মদক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা ও নিরলস পরিশ্রম এর মাধ্যমে দেশের জনসাধারণের দুর্যোগজনিত ঝুঁকিহ্রাস, দারিদ্রবিমোচন, সামর্থ্য বৃদ্ধি, দুর্যোগের নেতিবাচক প্রভাব থেকে দরিদ্র ও সুবিধাবি ত মানুষের বিপদাপন্নতা হ্রাস, যে কোন দুর্যোগে দক্ষতার সাথে জরুরি সাড়াদান ইত্যাদি কর্মসূচী সফলতার সাথে বাস্থাবায়ন করে আসছে। কিন্তু দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন ২০১২ এ প্রয়োজনীয় জনবল কাঠামো গঠনের জন্য বলা হলেও গত ১০বছরে এর সন্তোষজনক অগ্রগতি হয়নি। জনবল কাঠামো ও নিয়োগবিধির প্রস্তাবটি দীর্ঘদিন পূর্বে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হলেও বিভিন্ন অযুহাতে কালক্ষেপন করা হচ্ছে।

জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও পরিদপ্তরের অধীন পদ গুলো যুগোপযোগী করে আপগ্রেড করা হলেও তাদের সাথে সামঞ্জস্য রেখে এ মন্ত্রণালয়ের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীদের পদ অদ্যাবধি আপগ্রেডেশন করা হয়নি। যার ফলে সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে আমরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে আসছি পাশাপাশি ৪১৬টি বিভিন্ন পদ শূন্য থাকায় মাঠ পর্যায়ে কাজ কর্মে স্থবিরতা নেমে এসেছে। এজন্য আমরা এবার পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করছি।

(ঊষার আলো-এফএসপি)