বাদাম ভাঙতে গ্রেনেডের ব্যবহার!

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : বাদাম ভাঙতে হাতই যথেষ্ট। তবে বাদাম ভাঙতে গ্রেনেডের ব্যবহার শুনেছেন কি?

আশ্চর্যজনক কাজটি করেছেন চীনের এক বাদাম ব্যবসায়ী রান। তিনি গ্রেনেড দিয়েই আখরোট বাদাম ফাটাতেন।

জানা গেছে, চীনের শানসি প্রদেশের বাসিন্দা ও আখরোট ব্যবসায়ী রান । ১৯৮০ সালের দিকে রান বন্ধুর কাছে উপহার পান এক হাতুড়ি। আর হাতখানেক লম্বা কাঠের হাতলের মাথায় লাগানো বেলনাকার ধাতব সেই হাতুড়ি দিয়ে আখরোট বাদাম ভেঙে বিক্রি করতেন তিনি। এবং বাদাম বিক্রেতা হিসেবে তার পরিচিত ছিলো এলাকাজুড়ে। তবে তার এই সুখের দিনে একদিন নেমে এলো অন্ধকার।

শানসি প্রদেশের রাজপথে ২০১৬ সালে অন্যান্য দিনের মতোই বাদাম বিক্রি করছিলেন রান। সেদিন, তার কাছে বাদাম কিনতে আসেন এক সরকারি কর্মচারী। তারপরই বেঁধে যায় হুলস্থুল এক কাণ্ড। আর কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই হাজির হয় পুলিশের বিশেষ বাহিনী। কারণ, যে জিনিসটি তিনি হাতুড়ি হিসেবে ব্যবহার করেছেন ২৫ বছর, সেটি আসলে গ্রেনেড।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ‘স্টিক গ্রেনেড’খ্যাত এ আগ্নেয়াস্ত্রের উদ্ভাবন করেছিল জার্মানরা। আর বিষ্ফোরণ না হওয়া এমনই একটি গ্রেনেড পৌঁছেছিল রানের হাতে। যাই হোক সাময়িকভাবে গ্রেফতার করা হলেও, গ্রেনেডের ব্যাপারে ওয়াকিবহাল না থাকায় ও কারো এ জন্য ক্ষতি না-হওয়ায় কিছুদিনের মধ্যেই ছাড়াও পেয়ে যান তিনি।

(ঊষার আলো-এফএসপি)