এপ্রিলে দেড় লাখ ব্যবসায়ী ভ্যাট রিটার্ন দেননি

সর্বশেষ আপডেটঃ
94
0

ঊষার আলো ডেস্ক : করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ার কারণে ভ্যাট নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানের এক লাখ ৪৫ হাজারের বেশি ব্যবসায়ী এপ্রিল মাসের ভ্যাট রিটার্ন জমা দেননি। শুধু তাই নয়, নিবন্ধন নেয়া ৫৭ দশমিক ৭২ শতাংশ ব্যবসায়ী রিটার্ন জমা দিতে পারেননি।
এদিকে সরকারের কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সুদ ও জরিমানা ছাড়া রিটার্ন জমার সুযোগ দাবি করেছেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন।
সূত্র জানায়, ১২টি কমিশনারেটের মধ্যে সবচেয়ে কম রিটার্ন জমা পড়েছে ঢাকা দক্ষিণ ভ্যাট কমিশনারেটে। সেখানে ৬২ হাজার ২০০টি নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এপ্রিল মাসে ৮ হাজার ৯০৪টি প্রতিষ্ঠান ভ্যাট রিটার্ন দিয়েছে।
তবে অনলাইনে ভ্যাট রিটার্নে সফলতা দেখিয়েছে কুমিল্লা ও যশোর ভ্যাট অফিস। এই দুটি কমিশনারেটে অনলাইনে ভ্যাট রিটার্ন জমার হার ৯৫ শতাংশের বেশি।
এ বিষয়ে কুমিল্লা কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাটের কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরী বলেন, লকডাউনের মধ্যেও স্বল্প সংখ্যক জনবল নিয়ে গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করা হয়েছে। এ নিয়ে টানা আটবার অনলাইন ভ্যাট রিটার্ন জমায় প্রথম হলো কুমিল্লা ভ্যাট।
এর আগে গত ৮ এপ্রিল নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করার জন্য ব্যবসায়ীদের অনুরোধ জানায় এনবিআর। প্রতিষ্ঠানটি থেকে জারি করা আদেশে বলা হয়, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন ও বিধিমালা অনুসারে করদাতাদের মাস শেষ হওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে ভ্যাটি রিটার্ন দাখিলের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। অন্যথায় সুদ ও জরিমানা আরোপের বিধান রয়েছে।
নতুন ভ্যাট আইনে প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে ভ্যাট রিটার্ন জমা দেয়ার বিধান আছে। তা না হলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং নির্ধারিত ভ্যাটের টাকার ওপর ২ শতাংশ হারে সুদ আরোপ হয়।
প্রসঙ্গত, দেশে ভ্যাট নিবন্ধন নেয়া মোট প্রতিষ্ঠান ২ লাখ ৫১ হাজার ৮২৯টি। চলতি এপ্রিল মাসে রিটার্ন জমা দিয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ৪৬১টি প্রতিষ্ঠান। বাকি ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩৬৮টি প্রতিষ্ঠান এখনও রিটার্ন জমা দেয়নি।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
1
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ