সাহিত্যের এক মানদণ্ড সত্যজিৎ রায়

সর্বশেষ আপডেটঃ
33
0

ঊষার আলো ডেস্ক : সত্যজিৎ কোনো ব্যক্তির নাম নয় তিনি একটি প্রতিষ্ঠানের নাম। অখ্যাতকে তিনি এনেছেন খ্যাতির আলোতে। সাংস্কৃতিক বৈভবের মধ্যে একটি আরামকেদারায় দুটি পা সামনে তুলে তিনি বসে রয়েছেন।

গতকাল ছিল সত্যজিত রায়ের জন্মশতবর্ষ। এই দিনটায় সবচেয়ে বেশি বোঝা যায় আমরা কাকে হরিয়েছি। কারণ নির্দ্বিধায় একথা বলা যায় সত্যিই আমরা আর একজন সত্যজিৎ আজও পাইনি। কাজেই প্রতীক হিসেবে তিনি ধ্রুব। একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবেও অনায়াসে স্থান করে নিয়েছেন বাঙালি গণমানসে- তাঁর অজস্র লেখালিখি, তাঁর গানের কথা, তাঁর ছবির সংলাপ কিংবা তাঁর সৃষ্ট সুর আমাদের কালেকটিভ কনশাসনেসে উজ্জ্বল ও জীবন্ত। প্রজন্ম হতে প্রজন্মে যা প্রবাহিত হচ্ছে ও তা হবেও। এদিক থেকে ব্রিটিশদের যেমন আছে শেক্সপিয়র, আমাদের রবীন্দ্রনাথ বা নজরুলের পরই কিন্তু সত্যজিৎ।

এমন কি এখনের ভার্চুয়াল জগতের ছদ্ম কিংবা পাণ্ডিত্য, সার্বিকভাবে ভাষা বা সংস্কৃতির যে অবনমনের প্রতিনিয়ত সাক্ষী আমরা, তার মাঝেও দাঁড়িয়ে রয়েছেন সত্যজিৎ রায়। সে আমাদের অন্যতম একটি সাংস্কৃতিক মানদণ্ড। শ্রদ্ধেয় এই প্রতীকের প্রতি আমরা সত্যিই ঋণী।

(ঊষার আলো-এফএসপি)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ