যৌন নীপিড়নের অভিযোগ মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ মিথিলার বিরুদ্ধে

সর্বশেষ আপডেটঃ
13
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ হয়েও তানজিয়া জামান মিথিলা আলোচনায় এসেছেন। মিস ইউনিভার্স নাম ঘোষণার পরে এ মডেলের নেপথ্যের ঘটনা সামনে আসতে থাকে। এরইমধ্যে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের মতো গুরুতর অভিযোগ সামনে এসেছে। যেটি মিথিলা নিজেও স্বীকার করে মাও চেয়েছেন।
২০১৮ সালের একটি ইউটিউব সাাৎকারে মডেল মিথিলা ও সামিরা খান মাহিকে দেখা গেছে। এমনকি উপস্থাপকের করা বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন তারা। ভিডিওতে মিথিলা এবং মাহি জানান, পুরুষ শৌচাগারে ঢুকে তারা এক ব্যক্তির নগ্ন ভিডিও ধারণ করেছিলেন। সেটি আবার নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায়ও শেয়ার করেছেন মডেল মাহি। এতে দেখা গেছে, ভিডিও ধারণ শেষে হাসতে হাসতে দৌঁড়ে বেরিয়ে আসছেন মিথিলা এবং মাহি।

মিথিলা সম্প্রতি এ বিষয়ে শিশুসুলভ আচরণ করেছে উল্লেখ করে মা চাইলেও তা মানতে নারাজ নেটিজেনরা। এ ভিডিওকে কেন্দ্র করে নেটিজেনরা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। তারা এই যৌন নীপিড়নের জন্য মিথিলার শাস্তি দাবি করছেন।

মিথিলা ফেসবুকে লিখেছেন, আপনারা যে বিষয়টি তুলে ধরেছেন এটি খুবই প্রাসঙ্গিক। আমার কৃতকর্মের জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি অল্প বয়সী এবং অজ্ঞ ছিলাম। এটি নিতান্তই একটি তামাশা ছিল। একদমই আমরা সেটা মজার ছলে করেছি। সে সময় আমরা ভাইরাল হতে চেয়েছিলাম। এজন্যই এরকম একটা কাজ করে ফেলি।
এটিকে সরাসরি যৌন নীপিড়ন হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন মডেল এবং অভিনেত্রী নুসরাত জাহান নিপা। তিনি জানান সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট কে প্লিজ চাইল্ডিস বিহেভিয়ারের নাম দেবেন না। ২টা দুই প্রান্তের ব্যাপার। এ জঘন্য কাজের জন্য অবশ্যই শাস্তি হওয়া দরকার। ২৩-২৪ বছরের মেয়ে বাচ্চা হয় কিভাবে।

(ঊষার আলো-আরএম)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ